ক্রিকেটারদের বাড়িতে গিয়ে তো পর্যবেক্ষণ করতে পারব না

ক্রিকেটে ভাঙা গড়ার খেলা থাকেই। বাংলাদেশর ক্রিকেটও প্রায় ৯ মাসের খারাপ সময় কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ক্যারিবীয় সফরে। টেস্ট সিরিজে লজ্জাজনক হোয়াইটওয়াশ হলেও জিতেছে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ক্রিকেটের এই ভাঙা গড়ার খেলার সঙ্গে সঙ্গে যেন বেড়ে যাচ্ছে ক্রিকেটারদের অপরাধপ্রবণতা। তাদের ঘিরে বিতর্ক বাড়ছেই। সর্বশেষ ভক্তদের গালাগালের অভিযোগ উঠেছে সাব্বির আর সাকিবের বিরুদ্ধে। এমতাবস্থায় কী ভাবছে বিসিবি?

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রধান কোচ স্টিভ রোডসের সঙ্গে বৈঠক করেন বোর্ড সভাপতি ও বোর্ড পরিচালকেরা। তার পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন বিসিবি সভাপতি। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত বিষয়ে কিছু করা কঠিন। আমরা তো তাদের বাসায় গিয়ে পর্যবেক্ষণ করতে পারব না। ওদের বুঝতে হবে। তাদের সুযোগ দেওয়া হয়েছে প্রচুর। শোধরানোর সুযোগ যদি তারা না নেয়, সেটি ওদের সমস্যা। বোর্ডের সমস্যা নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মনে করেছিলাম শেষ যে বিচারটি হয়েছিল (সাব্বিরের দর্শক পেটানো), তারপর সব ঠিক হয়ে যাবে। এতেও যদি ঠিক না হয়, তাহলে তো কঠোর সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। উপায় নেই। এ ধরনের বিশৃঙ্খলা ক্রিকেটের জন্য ভীষণ খারাপ। যেহেতু বাংলাদেশের ক্রিকেট ভালো জায়গায় আছে, খেলোয়াড়দের নিয়ে বিতর্ক হোক, আমরা চাই না।’

কিন্তু এত শাস্তির পরেও ক্রিকেটাররা কেন অপরাধে জড়িয়েছে সে ব্যাপারেও খোঁজ করা দরকার বিসিবির। প্রয়োজনে মনোবিদ কিংবা কাউন্সেলিংয়ের ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.