ক্রিকেটের নেশায় নৌবাহিনী ছেড়েছেন ওপেনার ফখর জামান!

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি পেলেন ৪ ম্যাচ খেলা পাকিস্তানি ওপেনার ফখর জামান। সেটা আবার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে! ইনিংস ওপেন করতে নেমে ১০৬ বলে ১২ চার এবং ৩ ছক্কায় ১১৪ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেললেন তিনি! তবে তার এই ক্রিকেটার হয়ে ওঠার পেছনে রয়েছে দীর্ঘ লড়াইয়ের এক ইতিহাস। জীবনের তাগিদে যোগ দিয়েছিলেন নৌবাহিনীতে। কিন্তু ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসাই তাকে ফিরিয়ে আনে ২২ গজে।

২৭ বছর বয়সে পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ফখর জামানের। এই চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ছিল তার অভিষেক ওয়ানডে। আগে ম্যাচে ভারতের কাছে বিশাল ব্যবধানে হেরে যায় তার দল। সেই একাদশ থেকে আহমেদ শেহজাদ বাদ পড়লে সুযোগ হয় ফখরের। ওই ম্যাচে ৩১ রান করেন তিনি। তবে দলে জায়গা পাকা হয়ে যায়। শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরের দুই ম্যাচে যথাক্রমে ৫০ ও ৫৭ রানের দুটি ইনিংস খেলেন তিনি।

যদিও তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল টি-টোয়েন্টির মাধ্যমে। চলতি বছরের ৭ জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে মাত্র ৫ রান করেন তিনি। ৩ ম্যাচে ২৬ রান! তবে এই পারফর্মেন্স তার অগ্রযাত্রাকে থামিয়ে রাখতে পারেনি। যেমনটা রাখতে পারেনি ক্রিকেট থেকে দূরে রাখতে।

২০০৭ সালে তিনি পাকিস্তান নৌবাহিনীতে যোগ দেন। ২০১৩ সাল পর্যন্ত ওই চাকরি চালিয়ে যান। কিন্তু তার মন পড়ে আছে ক্রিকেটে। কী করবেন এখন? অতঃপর কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়ে নৌবাহিনী ছেড়ে ক্রিকেটে ফিরে আসেন ফখর। ওই বছরই পাকিস্তানের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে করাচি বুলসের হয়ে তার অভিষেক হয়। কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে মুলতানের  বিপক্ষে অভিষেকেই প্রথম ইনিংসে ১১৪ বলে ৭৯ রান আর দ্বিতীয় ইনিংসে ১৮১ বলে করেন ৮৩ রান। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একদিন জাতীয় দলের হয়ে খেলার অপেক্ষারও অবসান হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.