টেক টিপস : স্মার্টফোনে স্পাই অ্যাপ ও ফেসবুকের প্রাইভেসি রক্ষা

প্রশ্ন : আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে প্রচুর ছবি ও অন্যান্য স্মৃতি ছড়িয়ে আছে। কিন্তু ডিভোর্স হয়ে যাওয়ায় এখন সেসব বিষয় আর আমি দেখতে চাচ্ছি না। এ অবস্থায় কী করা উচিত?
উত্তর : ফেসবুকে আপনার ছবি ও অন্যান্য বিষয়গুলো যদি অন্যদের থেকে গোপন করতে চান তাহলে প্রাইভেসি সেটিংস-এ ক্লিক করুন। এ জন্য ওপরের ডানপাশের কোণার তালা চিহ্নটিতে যান এবং তার নিচে ‘হু ক্যান সি মাই স্টাফ’-এ ক্লিক করুন। এরপর ‘হু ক্যান সি মাই ফিউচার পোস্টস?’-এ সেটিংস পরিবর্তন করে ‘ফ্রেন্ডস’ সিলেক্ট করুন। আপনার যদি বন্ধু তালিকায় অনাকাঙ্ক্ষিত মানুষ থাকে তাহলে এ তালিকায় তাদের যোগ করা বা বাতিল করা সম্ভব। এতে তারা আর পোস্টগুলো দেখতে পাবেন না।
ফেসবুকের অ্যাকাউন্টে অ্যাক্টিভিটি লগের মাধ্যমে আপনার সব কার্যক্রমের তালিকা সংরক্ষণ করা হয়। এতে যাওয়ার জন্য ওপরের ডানপাশের কোণে থাকা নামের পাশে নিচের দিকের তীর চিহ্নে ক্লিক করুন। এরপর অ্যাক্টিভিটি লগে ক্লিক করুন। আপনি এতে অসংখ্য এন্ট্রি দেখতে পাবেন। এগুলো আপনার বিভিন্ন সময়ে করা ফেসবুক কার্যক্রমের তালিকা। এখান থেকে আপনার শেয়ার করা পোস্ট, ছবি, ভিডিও, লাইক ইত্যাদি সবই দেখতে পাবেন। আপনি যেসব বিষয় অতীতে সার্চ করেছেন, সেগুলোর একটি তালিকাও পাবেন বাম পাশের ‘মোর’-এ ক্লিক করে।

আপনার পছন্দনীয় পোস্ট রেখে অপছন্দনীয় পোস্টগুলোর বিষয়ে এখান থেকেই সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। প্রতিটি পোস্টের ডান পাশে একটি কলমের মতো চিহ্ন রয়েছে। সেখানে ক্লিক করে পোস্টগুলো মুছে দেওয়া যাবে। এখানে আপনি যদি অতীতে যে সার্চগুলো করেছেন তার তালিকা মুছতে চান তাহলে বাম পাশের ‘সার্চ’-এ ক্লিক করুন। এরপর আলাদা আলাদা করে মুছতে চাইলে ডান পাশের চিহ্নটিতে ক্লিক করুন। আর যদি সবগুলো মুছতে চান তাহলে ডানপাশে ওপরের দিকে থাকা ‘ক্লিয়ার সার্চ’-এ ক্লিক করুন।

ফেসবুকে ‘On This Day’ নামে একটি অ্যাপ রয়েছে, যা পুরনো স্মৃতি মনে করিয়ে দিতে পারে। এ ক্ষেত্রে তা বন্ধ করতে চাইলে ফেসবুক প্রোফাইল থেকে বাম কলামের অ্যাপস-এ গিয়ে ‘On This Day’ তে ক্লিক করতে হবে। সেখানে আপনি ইচ্ছেমতো নোটিফিকেশন অন বা অফ করতে পারবেন। এ ছাড়া তারিখ বা ব্যক্তি অনুযায়ী বিভিন্ন ব্যক্তির ক্ষেত্রে তা কার্যকর করতে পারবেন।

প্রশ্ন : আমার ট্যাবলেটে ক্ষতিকর প্রোগ্রাম রয়েছে কি না, কিভাবে বুঝব?
উত্তর : আপনি যদি ট্যাবলেট ডিভাইসে দেখতে পান বিভিন্ন পপআপ ডিভাইস ধীরে ধীরে আসছে তাহলে তাতে ম্যালওয়্যার রয়েছে বলে সন্দেহ করা যায়। এ ক্ষেত্রে আপনার অসতর্কতার সুযোগে ট্যাবের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতছাড়া হয়েও যেতে পারে। এ ছাড়া ভাইরাসের কারণে আপনার ডিভাইসের মারাত্মক ক্ষতিও হতে পারে। তাই সর্বদা বিশ্বাসযোগ্য অ্যাপ ইনস্টল করতে হবে। এ ছাড়া প্রয়োজনমতো ভাইরাস গার্ড ইনস্টল করতে হবে এবং সম্ভব হলে অপারেটিং সিস্টেম আপডেটেড রাখতে হবে।

প্রশ্ন : আমার টিনএজ সন্তান স্মার্টফোনে কী করে সে বিষয়ে আমি খুবই চিন্তিত হয়ে পড়েছি। তার স্মার্টফোনে একটি স্পাই গোপন সফটওয়্যার লাগানো প্রয়োজন, যেন আমি তার সব কার্যক্রম জানতে পারি।
উত্তর : এ ক্ষেত্রে স্পাই সফটওয়্যার আপনার সমস্যার সমাধান করতে পারে। তবে তার আগে তার সঙ্গে আলোচনা করে নিতে পারেন। এ ছাড়া স্পাই সফটওয়্যার ইনস্টল করলে আপনি স্মার্টফোনে তার সব কার্যক্রম দেখতে পারবেন। এ জন্য কয়েকটি অ্যাপের নাম দেওয়া হলো। এগুলোর মধ্যে থেকে আপনার পছন্দনীয় অ্যাপ ইনস্টল করে নিতে পারবেন।
এগুলো হলো :

  1. SPYERA
  2. THEONESPY
  3. FLEXISPY
  4. MSPY
  5. HIGHSTER MOBILE

Leave a Reply

Your email address will not be published.