আইডিএলসির বার্ষিক সাধারণ সভায় ৩৫% লভ্যাংশ ঘোষণা

আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৩৪তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর র‌্যাডিসন হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের প্রস্তাব অনুযায়ী ২০১৮ অর্থবছরে প্রতিষ্ঠানের সব শেয়ারহোল্ডারের জন্য ৩৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড (শেয়ারপ্রতি ৩.৫ টাকা) অনুমোদিত হয়।

বার্ষিক সাধারণ সভায় উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশের নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অগ্রণী প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি প্রাতিষ্ঠানিক শক্তি বৃদ্ধির পাশাপাশি গ্রাহককেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ২০১৮ সালের স্থিতিশীল অবস্থান ধরে রেখেছে। ২০১৮ সালের শেষে আইডিএলসি গ্রুপের মোট ঋণ ও অগ্রিমের পরিমাণ দাঁড়ায় ৮ হাজার ৩৯৩ কোটি টাকা, যা গত বছরের চেয়ে ১৭.৩৯ শতাংশ বেশি। মন্দ ঋণের হার ২.৭৭ শতাংশ থেকে কমে ২.২০ শতাংশ হয়েছে, যা একটি উন্নত ঋণ সম্পদের প্রতিফলন। মোট সম্পদের পরিমাণও ১৪.০৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ১০ হাজার ৯১৭ কোটি টাকায় দাঁড়ায়, যা বিগত পাঁচ বছরের গড় প্রবৃদ্ধির হার ১৬.৭০ শতাংশ রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এমনকি ২০১৮ সালে পুঁজিবাজারভিত্তিক আর্থিক অঙ্গপ্রতিষ্ঠানগুলোর (আইডিএলসি সিকিউরিটিজ লিমিটেড, আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড ও আইডিএলসি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড) মুনাফা হ্রাস পাওয়া সত্ত্বেও বছর শেষে গ্রুপের বিগত পাঁচ বছরের ট্যাক্স-পরবর্তী গড় নিট মুনাফা ২৬.৫৩ শতাংশে বহাল রয়েছে। রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার পাশাপাশি বাজার পরিস্থিতি বিবেচনা করে সামগ্রিকভাবে আইডিএলসি উল্লেখযোগ্য ব্যবসায়িক সাফল্য অর্জন করেছে।

বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান আজিজ আল মাহমুদ। সভায় আরও অংশ নেন প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান, স্বতন্ত্র পরিচালক ও অডিট কমিটির চেয়ারম্যান মনোয়ার উদ্দিন আহমেদ ও অন্য সম্মানিত পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াদুদ, মাহিয়া জুনায়েদ, মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, মো. কামরুল হাসান, নিয়াজ হাবিব (স্বতন্ত্র পরিচালক), মতিউল ইসলাম নওশাদ (স্বতন্ত্র পরিচালক), প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ খান এবং কোম্পানি সচিব মোহাম্মদ জোবাইর রহমান খান। এ ছাড়া বিপুলসংখ্যক শেয়ারহোল্ডার ও কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.