বিশ্বের তিনজন মানবতাবাদী নেতার মধ্যে একজন শেখ হাসিনা

জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি ও গণহত্যা প্রতিরোধ বিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা অ্যাডামা ডিয়েং বলেছেন, বিশ্বের তিনজন মানবতাবাদী নেতার মধ্যে বাংলাদেশের শেখ হাসিনা একজন । তিনি ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেছেন। রোববার (২৪ মার্চ) বাংলাদেশ ইনস্টিটউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিস) মিলনায়তনে আয়োজিত এক সেমিনারে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ‘বাংলাদেশে গণহত্যা: ১৯৭১’ -শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করে বিস। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতিসংঘের বিশেষ উপদেষ্টা অ্যাডামা ডিয়েং। সেমিনারে জাতিসংঘের এ বিশেষ উপদেষ্টা বলেন, বিশ্বের মানবতাবাদী তিনজন রাষ্ট্র প্রধানদের মধ্যে শেখ হাসিনা অন্যতম। অপরজন দুইজন হলেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল ও নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন।

অ্যাডামা ডিয়েং গণহত্যা বিষয়ক বক্তব্য দেওয়ার এক পর্যায়ে বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেছেন। একই সঙ্গে জার্মান চ্যান্সেল মার্কেল সিরিয়ার লাখ লাখ শরণার্থীদের নিজ দেশে আশ্রয় দিয়েছেন। বিপন্ন সিরিয়ানদের আশ্রয় দিয়ে জীবন বাঁচিয়েছেন তিনি। আর এদিকে নিউজিল্যান্ডে মসজিদে নৃশংস হামলার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা মুসলিমদের প্রতি যেভাবে সংহতি প্রকাশ করেছেন, তা অনন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের উপদেষ্টা বোর্ডের সদস্য মফিদুল হক, বিস চেয়ারম্যান মুন্সী ফায়েজ আহমদ, বিস মহাপরিচালক মেজর জেনারেল এ কে এম আব্দুর রহমান এনডিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.